Category: কবিতা

0

তিনকবির সংলাপ ” মেঘবালিকার ধারাপাত…”

ভেজা মেঘের আলাপে আবেগ করে স্নান আমার মনে তোমার ছবি হয়না কভু ম্লান। আকাশের মেঘ যখন মনের মাঝে এসে জমাট বাঁধে অগোছালো ভাবনা গুলো তখন কবিতা হয়ে ডুব দেয় মন দরিয়ায়। পামেলা, দেবারতি, শেলী এরা তিন বন্ধু।না চাক্ষুষ কেউ কাউকে দেখেনি। তবুও তারা বন্ধু। ভার্চুয়াল জগৎ এর মোহজালে আবদ্ধ তিন...

0

পামেলা চক্রবর্তীর কবিতা “একটি রূপকথার জন্ম!”

   সব শব্দের অর্থ থাকলে অর্থহীন শব্দেরা নিঃশব্দ হয়ে যায়।           “হাজার কথা”র ভীড়…                     নিঃশব্দ হলে মন্দ কি? তবে ,সেইদিন, এক ‘সাধারণ’ছেলে….                     যখন এক ‘অ’ মেয়ের...

0

মৌমিতা গুঁইর কবিতা ‘প্রার্থনা’

পঞ্চ স্বামীর সোহাগে, বংশ ধ্বংসের অভিশাপ কুড়িয়ে সন্তান হারালো যে মা, স্বভাবসুলভ হিংসায় মুখ বেঁকিয়ে মেপে নিচ্ছিলাম তার কৃষ্ণের মত বন্ধু পাবার সৌভাগ্যকে। অগ্নিকুন্ড থেকে জন্মানোর পর সেই অগ্নিরূপ কেন আমার হল না – কত সহজে জয় করতাম আকাঙ্খিত পুরুষকে। হিসহিসিয়ে শিরায় শিরায় বিদ্রোহ উঠল – কুরুক্ষেত্রের রক্তস্নাত রূপ,অনন্য অসামান্য...

0

শেলী নন্দীর কবিতা ‘মন্দ হলে ‘

অবুঝ মনের অবাধ্যতায় ডাক পড়ে সর্বনাশী খেলার। গোপন থেকে সঙ্গোপনে কুড়িয়ে রাখি ইচ্ছে পালক। মন্দ হওয়ার বেপরোয়া শক্তিতে পরাজিত হয় মনের রক্তকরবী।  মনের সাথে শরীর মেশে, শরীর জুড়েও মন। লজ্জারা যায় নির্বাসনে শীতের ঝরাপাতা হয়ে। শিহরন জাগরন মিলেমিশে রং পায় উষ্ণতার বুকে। অভিমানী সত্ত্বা বেপথু হয় অভিসারী বাঁশীর হাতছানিতে। শিশিরের...

0

স্বাতী মজুমদারের কবিতা ‘আত্মপরিচয়’

একবার বুঝতে চেয়ে বুঝতে চেষ্টা কর আমায়। জলের চেয়েও সহজ আমি। আর না চাইলে? পৃথিবীর সবচেয়ে জটিল ধাঁধাটাও হার মানবে আমার কাছে। না। আমার চেতনার রঙে কখনও পান্না সবুজ, চুনী রাঙা হয়ে ওঠেনি । আমি কখনও পুবে পশ্চিমে আলো জ্বালব বলে চোখ মেলিনি আকাশে। গোলাপের দিকে চেয়ে কখনও বলিনি ‘সুন্দর’।...

0

মৌমিতা গুঁইর কবিতা ‘নীলস্বপ্ন’

আমার দুঃখের সূর্য ঝলমল করে আকাশে রাতের তারারা মিটিমিটি চায় ভাবসম্প্রসারণের চাঁদ হোক যতই ঝলসানো রুটি, রুটিতে যে বড্ড অরুচি। মেঘ যদি পিওন হয়, দমকা হাওয়া নিয়ে আসে উড়োচিঠি – বসন্ত চাই না আমি, অপেক্ষা করছি কালবৈশাখী। উড়ে যাবে ছাতা, আমি কিন্তু ইষ্টনাম জপতে জপতে ভাবব ডুবল বুঝি তরী –...

0

সৌমেন দত্তর কবিতা ‘পরিণীতা’,

প্রহর গুলো অরুণা জালে ঘিরেছে, অভ্যাসের চিলেকোঠার বদ্ধতা থেকে, তোমার টানে কিনারাহীন কিনারায় পদার্পন। রজনীগন্ধা নেই,বকুল গাছও নেই, তবুও ঘরছাড়া এ মন। মিথ্যে মুখে সত্যির স্নো পাউডারে শহরটা চকচকে, কান্না আর হাহাকারের নিত্য আনাগোনা। কষ্টের দহনে,দগ্ধ আর্তনাদ, এতো কোলাহল আর্তনাদের মাঝে শান্তি খুঁজি। রঙিন জৌলুশে ঠাসা, চতুর্দিক উনকোটি চৌষট্টি কর্মে...