Category: গল্প

0

মৌসুমি ভৌমিকের গল্প ‘আমার দুর্গা !’

মৌসুমি ভৌমিক “উফফফ…।এতো টুকু তেল পড়ে আছে? এতে কি আর রান্না হবে? আজকে কাজে বেরোতে আবার দেরী হয়ে যাবে…মাআআ…আমি দোকান বেরোচ্ছি…।“………মধুজার সকাল প্রায়ই শুরু হয় এইভাবে। নুন আনতে পান্তা ফুরনো হয়তো তাদের সংসার নয়। কিন্তু স্বভাব তাদের গুছানো নয়। দাদাটা সকাল থেকেই বিড়ি মুখে দু কাপ চা ধ্বংস করে রাজা...

0

সৃজনী মুখার্জীর অনুগল্প ‘সব চরিত্র কাল্পনিক’

সৃজনী মুখার্জী সিগন্যালটা লাল হতেই মানুষের দঙ্গল টার সাথে একজন বৃদ্ধাও রাস্তা পার হচ্ছেন বয়সের ভারে ঈষৎ ন্যুব্জ ; দেখতে পাচ্ছেন ? আপনার অন্যতম প্রিয় কবিতার সত্বা চিনতে পারছেন ওঁকে ? পাখির নীড়ের মতো চোখে হাই পাওয়ারের চশমা ; তাও বহুদিন পরীক্ষা করানো হয় নি , অভাবের সংসারে আবার উপরি...

0

বর্নালী চন্দর গল্প ‘নতুন অধ‍্যায়’

            বর্নালী চন্দ ঘুম থেকে উঠে রাতুল দেখল বেশ বেলা হয়ে গিয়েছে। ঘড়ির দিকে চোখ পড়তেই লাফিয়ে উঠল, বাপ্ রে আটটা বেজে গিয়েছে। সকাল ছটার অ্যালার্ম দিয়েছিল মোবাইলে, কখন যে বেজে বেজে বন্ধ হয়ে গিয়েছে, বুঝতেই পারে নি। আসলে মায়ের ডাক শুনে উঠতে অভ‍্যস্ত ও,...

0

বর্নালী চন্দ র অনুগল্প ‘ফিরে দেখা’

ছাতাটা নিয়ে যা, বাইরে কালো মেঘ করেছে, বৃষ্টি আসছে তেড়ে। মার কথা কানে না তুলেই একছুটে বাইরে বেরিয়ে গেল অহনা। কোচিং ক্লাসে দেরি হয়ে যাবে। বেরিয়েই দেখল, চারিদিকে ঘন কালো মেঘ করেছে, বৃষ্টি নামল বলে। প্রায় দৌড়ে মন্দিরের মোড়টা ঘুরেই কুন্তলদাদের বাড়ির সামনে আসতেই পাদুটো অজান্তেই আস্তে হয়ে গেল। বুকের...

0

দেবারতী পাঠক চ্যাটার্জীর গল্প “এক বৈশাখে দেখা হল দুজনায়…”

এই সুন্দর স্বর্নালী সন্ধায়…. একটানা গানের আওয়াজ ভেসে আসছে পাশের বাড়ি থেকে।   মল্লিকা দি গান গাইছে। খুব সুন্দর গান গায় মল্লিকা দি। কি মিঠে গলা। রোজ ভোরে মল্লিকা দির রেওয়াজের সুরেই ঘুম ভাঙ্গে আমার। প্রথমে সা ধরে রেওয়াজ চলে বেশ কিছুক্ষন।  ভৈরব-ভৈরবীর সুরে আর ভোরের আধো অন্ধকারে চোখ খুলি...

0

ময়ূরী পাঁজার গল্প ‘বৈশাখী উপহার’

সুবর্ণপ্রভা দেবী বসে আছেন পালঙ্কের চূড়োর গায়ে হেলান দিয়ে , কোলে একটা অ্যালবাম। যে পালঙ্কে হেলান দিয়ে আছেন,  অনেক বড়,  দুদিকে দুটো চূড়ো। সামনে দুটো বড় বড় জানলা। জানলার ওপারে পুকুর ,  কয়েকটা ছেলে ঝা়ঁপাই জুড়েছে। পুকুরের ওপারে মাঠ,  রোদ্দুরে খাঁ খাঁ করছে।  মাথার উপর পাখাটা ঘটাং ঘটাং শব্দ করে...

1

ময়ূরী পাঁজার পাঁচটি অনুগল্প

১ তিথির শাড়ি ও গয়নার কালেকশন দেখে সবাই হিংসে করে,  সে  বাড়ির লোকজন হোক বা পার্টিতে.. কতজন ঠোঁট বেঁকায় হিংসায়!! কেউ জানে না___ অন্যের গোছানো সংসারে স্বামী সন্তানদের দেখে  কত রাত বালিশের বুক ভেজে। ২ ” উম্ ম্ ম্, তন্দুর চিকেন হচ্ছে, রুমালী রুটি দিয়ে খাব। এইইই ছোকরা এখানে দিয়ে...